শিরোনাম
  গনতন্ত্র বিনষ্টের মূল কুশীলব এবং কারিগর হচ্ছে বিএনপি-আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের       আবু ত্ব-হা মোহাম্মদ আদনান ব্যক্তিগত কারণে আত্মগোপনে ছিলেন-জানালেন পুলিশ।       সৌদি আরবে রেমিট্যান্স যোদ্ধা ব্লাড ব্যাংক’র আত্নপ্রকাশ ও দোয়া মাহফিল       নাছির উদ্দীন মাহমুদ,ও অমি সহ ৬ জনকে আসামি করে মামলা,ঘটনার বিষয় মুখ খুললেন পরীমনি।।       এস,এ,নুর স্কুল রোড পরিদর্শনে- জেলা পরিষদ প্যানেল চেয়ারম্যান বাবু দেবব্রত দাশ।       বীর মুক্তিযোদ্ধা মানিক মিয়ার মৃত্যুতে চট্টগ্রাম মহানগর জাসাসের শোক বিডি সংবাদ ৭১       রাজধানীর পল্লবীতে সন্তানের সামনে বাবাকে কুপিয়ে হত্যাকারী তিন আসামি গ্রেফতার।       ফেক আইডি দিয়ে ফেসবুকে অপবাদ ছড়ানোই গৃহবধুর আত্মহত্যা,অকারনেই স্বামিকে দোষারোপ       পটিয়ায় ছুরিকাঘাতে প্রাণ গেল এরশাদ নামের  বিদেশ ফেরত এক প্রবাসী তরুন এর- গ্রেফতার ১       ইসরায়েল ও রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠী একসূত্রে গাঁথা -তারেক আজিজ চৌধুরী।    

আজ শনিবার, ১৯ Jun ২০২১, ১২:১৫ অপরাহ্

 

রফিক চৌধুরী—————————জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতারা অভিযোগ করে বলেছেন, অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচন হোক সরকার তা চায় না। এ জন্য সারাদেশে বিরোধীদলের নেতাকর্মীদের উপর হামলা করা হচ্ছে। নির্বাচনের প্রার্থীদের গুলি করা হচ্ছে। জনগণ এর প্রতিরোধ গড়ে তুলে গৃহযুদ্ধ বেধে যেতে পারে। তবে এমন পরিস্থিতির তৈরী হোক আমরা চাই না। তাই সরকারকে বলবো এখনো সময় আছে ঐক্যফ্রন্টের নেতাদের উপর হামলা মামলা বন্ধ করুন। অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ তৈরী করুন।
গতকাল জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের পল্টনের অস্থায়ী কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে নেতৃবৃন্দ এসব কথা বলেন। ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ড. কামাল হোসেন ছাড়াও সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, আ স ম আবদুর রব, মাহমুদুর রহমান মান্না, আব্দুল আউয়াল মিন্টু, মোস্তফা মহসীন মন্টু, এডভোকেট সুব্রত চৌধুরী, সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল প্রমুখ। জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ড. কামাল হোসেন বলেন, আসন্ন নির্বাচন যাতে সুষ্ঠু না হয় সে ব্যাপারে যথেষ্ট আশঙ্কা তৈরি হয়েছে। কারণ ক্ষমতাসীনরা জনমত বুঝে গেছে। আর সে কারণে জোর করে ক্ষমতায় থাকার সব ধরনের চেষ্টাই তারা করছে। নির্বাচন যাতে অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ না হয় ক্ষমতাসীনরা সে চেষ্টা করছে বলে লক্ষ্য করা যাচ্ছে।
ড. কামাল বলেন, আমাদের স্বাধীন দেশের একটি সংবিধান রয়েছে। সেখানে কিভাবে নির্বাচন হবে সে বিধান রয়েছে। দেশের মালিক জনগণ। জনগণই তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগের মাধ্যমে প্রতিনিধি নির্বাচন করে থাকে। সেজন্য নির্বাচন খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আমরা একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য খুব চেষ্টা করে যাচ্ছি। আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছি। এক্ষেত্রে মিডিয়ারও বিশেষ ভূমিকা রয়েছে। ভোটাররা যেন স্বাধীনভাবে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারেন সেজন্য বাধা সৃষ্টিকারীদের শনাক্তের জন্য গণমাধ্যমের প্রতি আহŸান জানান তিনি।
ড. কামাল বলেন, খ্বুই দুঃখজনক যে, ভোটারদের হুমকি দেয়া হচ্ছে। মিছিল মিটিংকারীদের আক্রমণ করা হচ্ছে, প্রার্থীদের গ্রেফতার করা হচ্ছে। গুলি করা হচ্ছে। আরও দুঃখজনক যে, এসব ঘটনায় কোনো তদন্ত হয় না, কোনো আইনানুগ ব্যবস্থাও নেয়া হচ্ছে না। এসব তো খেয়াল খুশির ব্যাপার না। তিনি বলেন, সুষ্ঠুভাবে নির্বাচন নিশ্চিত করার কথা সংবিধানে বলা হয়েছে। যারা অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন অনিশ্চিত করার চেষ্টা করছে, বাধা সৃষ্টি করে, আক্রমণ করে এদের ব্যাপারে সংবিধান অনুযায়ী আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার কথা থাকলেও তা নেয়া হচ্ছে না। সে কর্তব্য পালনে আমরা ঘাটতি দেখছি।
ড. কামাল বলেন, শুধু বিরোধী দলের প্রার্থীদের গ্রেফতার করা হচ্ছে, এটা অবাক কান্ড। তাদের উপর হামলা করে আবার তাদেরই আটক করা হচ্ছে। অথচ যারা আক্রমণকারী তারা আক্রমণ করেই যাচ্ছে। এগুলো উদ্বেগের। স্বাভাবিকভাবেই আশঙ্কা হচ্ছে, আসলে ভোটের দিন কী হবে।
নেতাকর্মী ও মিডিয়ার প্রতি আহŸান জানিয়ে তিনি বলেন, মিডিয়ার গুরুত্ব এবং কর্তব্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। মিডিয়াকে সতর্ক থাকতে হবে। জনগণের হয়ে পাহারা দিতে হবে। ভোটের দিন যেন সেরকম কিছু না ঘটে। যাতে ভোটাররা বঞ্চিত না হয়, অন্যের ভোট দেয়া ও জাল ভোট দেয়ার ঘটনা না ঘটে।
প্রার্থী, সমর্থকদের উপর আক্রমণ ও গ্রেফতারের অভিযোগ আপনাদের। এমতাবস্থায় নির্বাচন হবে কি-না বা নির্বাচন বানচালের ষড়যন্ত্র চলছে কিনা? আশঙ্কা কী? জানতে চাইলে ড. কামাল বলেন, এটাতো অভিযোগ নয়, সত্য কথা। আমরা তো তথ্য দিচ্ছি। আশঙ্কা তো আছেই। নির্বাচনকে অবাধ ও নিরপেক্ষ হতে দেয়া হবে না। এটা তো আপনারা দেখতেছেন আমরা দেখতেছি। জনমত কাদের পক্ষে তারা তো তারা বুঝে গেছে। রাষ্ট্রপতির ডাক আমরা এখনো পাইনি। আশা করছি অনুমতি পাবো। অনুমতি পেলে আপনাদের জানানো হবে।’
নির্বাচনের আর ১৪ দিন। আপনারা সেভাবে মাঠে নামতেই পারেননি বলছেন। এমতাবস্থায় বাকি সময়টুকুতে আপনারা টিকে থাকতে পারবেন বলে মনে করেন? সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে ড. কামাল হোসেন বলেন, অবশ্যই টিকে থাকতে পারবো। জনমত থাকলে মাঠে টিকে না থাকার কোনো প্রশ্নই নেই।
সংবাদ সম্মেলনে সূচনা বক্তব্যে আ স ম আবদুর রব বলেন, প্রচার শুরুর কয়েকদিনের মধ্যে ঐক্যফ্রন্টের নেতাদের উপর সারাদেশে হামলা চলছে। প্রথমে লাঠি সোটা দিয়ে হামলা হয়েছে। গতকাল থেকে প্রার্থীদের গুলি করা হচ্ছে। এখনি যদি গুলি চলে তাহলে সামনে তো কামান ট্যাংক দিয়ে আক্রমণ করা হবে। তবে আমরা ভোটের মাঠে আছি, এবং থাকবো। আমরা রোডমার্চে দেখেছি জনতার ঢল। এ জনগণ যদি আওয়ামী লীগের হামলার প্রতিরোধ গড়ে তুলে তাহলে গৃহযুদ্ধ বেধে যেতে পারে। আমরা তা চাই না। আমরা চাই শান্তিপূর্ণ পরিবেশে একটি অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচন। তাই সরকারকে বলবো, আজ থেকে হামলা-মামলা, গ্রেফতার বন্ধ করুন। সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ তৈরী করুন। অন্যতায় যে কোন পরিস্থিতির দায় ভার সরকারকেই নিতে হবে।
এক প্রশ্নের জবাবে আব্দুল আউয়াল মিন্টু বলেন, আমরা ভোটের মাঠে আছি, থাকবো। আমাদের জন সমর্থন দেখে সরকার ভিত হয়ে জোর করে ক্ষমতায় থাকার চেষ্টা করছে। সরাদেশে ঐক্যফ্রন্টের নেতাকর্মীদের উপর হামলা করছে। প্রার্থীকে গুলি করে আহত করা হচ্ছে। এ অবস্থায় সহজেই বোঝা যাচ্ছে সরকার চায় না ঐক্যফ্রন্ট নির্বাচনে থাক। তবে আমরা নির্বাচনে আছি এবং থাকবো। জনগণ আমাদের সাথে আছে। জনগণ যদি প্রতিরোধ গড়ে তুলে তাহলে যে পরিস্থিতির তৈরী হবে তার দায় সরকারকে নিতে হবে

 
 
 

আরও পড়ুন

গনতন্ত্র বিনষ্টের মূল কুশীলব এবং কারিগর হচ্ছে বিএনপি-আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের

আবু ত্ব-হা মোহাম্মদ আদনান ব্যক্তিগত কারণে আত্মগোপনে ছিলেন-জানালেন পুলিশ।

সৌদি আরবে রেমিট্যান্স যোদ্ধা ব্লাড ব্যাংক’র আত্নপ্রকাশ ও দোয়া মাহফিল

নাছির উদ্দীন মাহমুদ,ও অমি সহ ৬ জনকে আসামি করে মামলা,ঘটনার বিষয় মুখ খুললেন পরীমনি।।

এস,এ,নুর স্কুল রোড পরিদর্শনে- জেলা পরিষদ প্যানেল চেয়ারম্যান বাবু দেবব্রত দাশ।

বীর মুক্তিযোদ্ধা মানিক মিয়ার মৃত্যুতে চট্টগ্রাম মহানগর জাসাসের শোক বিডি সংবাদ ৭১

রাজধানীর পল্লবীতে সন্তানের সামনে বাবাকে কুপিয়ে হত্যাকারী তিন আসামি গ্রেফতার।

ফেক আইডি দিয়ে ফেসবুকে অপবাদ ছড়ানোই গৃহবধুর আত্মহত্যা,অকারনেই স্বামিকে দোষারোপ

পটিয়ায় ছুরিকাঘাতে প্রাণ গেল এরশাদ নামের  বিদেশ ফেরত এক প্রবাসী তরুন এর- গ্রেফতার ১

ইসরায়েল ও রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠী একসূত্রে গাঁথা -তারেক আজিজ চৌধুরী।

অন্যের স্ত্রী নিয়ে পালিয়ে গেলেন ফ্রান্স আওয়ামী লীগ এর যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রানা চৌধুরী। হতবাক কমিউনিটি

প্রবাসীর স্ত্রীকে ভাগিয়ে নিলো তিন সন্তানের জনক মধুখালীর পোল্ট্রি ফিড বিক্রেতা রুমি।

চট্টগ্রাম শহরের একটি বিশেষ দোকান! “পীতাম্বর শাহ”, ৩৩২ নং, বক্সির হাট, চট্টগ্রাম

দুর্গা পুজা সকল ধর্মের লোকদের উৎসব প্রধানমন্ত্রীর এমন বক্তব্যে-নায়ক আলমগীর

জাতীয়তাবাদী প্রবাসী বিএনপি পরিবার ওয়ার্ল্ড অনলাইন এর আত্বপ্রকাশ।

শুভেচ্ছা ব্যান্ডের ভার্চুয়াল লাইভ শো তে আজ আসছেন সুপার হিট নায়িকা সাহানুর ও চ্যানেল আই সেরা কন্ঠের নান্নু-আজ রাত ৬-৩০মিঃ

সালাউদ্দিন সরকার সভাপতি, নুর আলম সাধারণ সম্পাদক ও রবিউল ইসলাম টিটুকে সাংগঠনিক সম্পাদক করে কান্দারা যুবদল ঘোষণা,

মির্জা মিলনের জনপ্রিয়তায় ভীত হয়ে অপপ্রচার, প্রতিবাদে মিলনের সংবাদ সম্মেলন

যুবদলের যূগ্ন আহ্বায়ক হুমায়ুন কবির এর মায়ের মৃত্যুতে বি এন পির উপদেষ্টা আলহাজ্ব আব্দুর রহমান এর শোক প্রকাশ।

বাংলাদেশ বিমানকে কোটি টাকা জরিমানা করেছে সৌদি আরব।

 

Top
ব্রেকিং নিউজ :
Shares